প্লাস্টিকের খোলশ

সমস্ত শহর অন্ধকার,

ঝড়ে উড়ে গেছে চোখের পাপড়িরা,

হঠাৎ কে যেন টেনে ঘুমপাড়িয়ে দিল আমাকে,

আর কিছু নেই, কেউ নেই,

সময়ের অপচয় নেই,

মৃত্যুর আনাগোনা নেই,

নেই কোন সৎ মানুষ

নেই, কেউ নেই আর -

ভালোবাসায় মোহগ্রস্থ করার।

পড়ে আছে শুধু মাংসের দলার মত পাকিয়ে থাকা শরীর।

 

পড়ে আছে আর চিৎকার করে বলছে- দেখে নেবে

দেখে নেবে আর সব অবহেলার প্রতিশোধ সে তুলে নেবে,

আর ঘুম, অন্ধকার

ষড়যন্ত্র নেই,

জেগে ওঠে আরো অনেক শাখা মৃগয়া।

 

নতুন যারা আসে,

দেখায় কত দূর কে কিভাবে

সত্য করে তুলেছে ভালোবাসার আদর্শ,

অন্ধকারের মূর্তি,

কিংভুতকিমাকার,

কবিতা নষ্ট হয় প্রতিদিন,

হাস্যকর শোনায় শ্রোতার মুখের স্তুতি,

নষ্ট হয়না শূধু ধর্ষকেরা

অন্তত পচনের গন্ধ টের পায়না গরীব ভিক্ষুকেরা।

শকুনের মত ঘুরে বেড়ায়,

লাশের মত পড়ে থাকে , গাড়ির সারির ভিতর।

 

কেউ কাঁদেনা,

শুধুমাত্র সিনেমার নায়িকা ছাড়া

ঘোর অন্ধকার

রাজপথ অশ্লীল শব্দে মোড়া

পুরোহিতের মত নেতা

দেবতার মত ক্ষমতা তার অন্ডকোষে।

 

 নেই, আর কোন কান্নার শব্দ নেই

নেই কোন মহাপুরুষের ছবি আঁটা পোস্টার।

 

সব বিক্রি হয়ে গেছে,

নারীর স্তন, কবির জিহবা

সন্তানের মগজের বিনিময়ে নিরাময় কেন্দ্র

কিংবা নিশ্চিন্তি মৃত্যুর আশা

সব বিক্রি হয়ে গেছে

অনলাইনে নেই কোন অফার,

দূর্গন্ধ, প্লাস্টিক - সাদা ঈশ্বর ধার্মিক।

উরুর মাঝে নষ্ট ট্রানজিস্টার

কিছুই বেঁচে থাকেনা

বিক্রি হয়ে যায় অন্তর্জাল বাজারে

প্রেমিকার হাসি, প্রেমিকার হাত

কাটা দাগ, ভিখিরি

মাত্র ১০টাকায় এক প্যাকেট অহংকার

অনেক অনেক জনপ্রিয়তা

সেখানে নেই শুধু মায়ের মুখ

আছে দালালের মুখ

হাসিমাখা স্তবক আর

আকাশভরা বখলপনা

একটা সেন্টিমিটার ওয়ালা দাড়ি

আর চৌরাস্তার ট্রাফিক

পৃথিবী , লাটিম কিংবা

মিথ্যেবাদী রাখালের গল্প ।

সব বদলে যায় ,

পড়ে থাকে শুধু প্লাস্টিক

প্লাস্টিকের খোলশ ।।

 

 

১১মে,২০১৭