আতঙ্কিত সময়

মানুষগুলো বসে আছে পাথর হয়ে কিংবা হাত-পা ছড়িয়ে 

আলো খুজে তীরে ভেঙ্গে, হাতিরঝিল আসলে কিম্ভত এক বটের ফুল

সভ্যতার খোঁজে বেরিয়ে হারিয়ে গেলো সক্রেটিসের বংসশধর নুরুলুদ্দিন,

একটা বিভ্রান্তি নিয়ে স্থাপতি অপেক্ষা করে কার না্মটা সবার আগে দিবে।

কিন্তু মুক্তিরগান নামক যে আইটেমসংএ সল্পবসনা নাচলো

তার বিপক্ষে ঠিক-ই উকিল নোটিশ পাঠালো সমাজের কিট

রাতে ভালো ঘুম হয়নি বোধহয়!

 

সঙ্গিীতের পেছনে ছুটে ছুটে জনৈক ভদ্রলোকের নাক কাটা গেছে বলেও শোনা যাচ্ছে

বস্তিবাসী অপেক্ষায় আছে কখন বড়লোক নামক একটা রাজনইৈতিক দলের নীতিকথা শেষ হবে

আর ভেঙ্গে পড়বে ,

সবাই ছীড়ে-চিড়ে খাবে - একে অপরকে 

এই দলে কেউ কাউকে ভালোবাসেনা - অন্তত শরীর বাদে।

 

এভাবেই পানির তলে তলিয়ে যাওয়া শহরে তবু  বৃষ্টির  আগমন থামেনা,

পানির তলে চলে জমির আইল মুছে নতুন জমি বিক্রির বিজ্ঞাপন।
 

সুখ কে কে পাবে তার জন্য তথ্য মন্ত্রনালয়কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে

কোটাপদ্ধতি আর সুপারিশের খাতিরে শোনা যাচ্ছে লিস্ট তৈরির আগেই

সব সিট বুকড!

 

ছবি নেই কারো মুখের

সব ছবির মুখ এসে ভিড় করে বসার ঘরে

ওরা একটা কোম্পানি বানাতে চায় ।

(অসমাপ্ত)